WhatsApp-এ AI অ্যানিমেট ফিচার ব্যবহার করবেন যেভাবে, শিখেনিন পদ্ধতি

পুরো বিশ্বে সবখানেই এখন এআই ব্যবহারে মনোযোগ দিচ্ছে সবাই। রান্নার রেসিপি থেকে শুরু করে জোকস, চাকরির সিভি, প্রেজেন্টেশন সবই করা যাচ্ছে এআই দিয়ে। এছাড়া অফিসের কাজ তো আছেই। চ্যাটজিটিপির পাশাপাশি অন্যান্য সংস্থাও এআই চ্যাটবট আনছে।

মেটার মালিকানাধীন বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপ। সারাক্ষণ কোনো না কোনো কাজে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করছেন। বিশ্বজুড়েই ইউজারদের জন্য জেনারেটিভ এআই, মেটা এআইয়ের মতো ফিচার ধীরে ধীরে আনতে চলেছে হোয়াটসঅ্যাপ।

মেটা এআই ব্যবহারকারীদের প্রম্পটের উপর ভিত্তি করে লেখা বা ছবি তৈরি করে দেয়। মেটা এআই ইউজারদের প্রশ্নের উত্তর দেবে, জোকস শোনাবে, ছবি বানিয়ে দেবে, আর সবটাই করবে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে। ব্যবহারকারীরা ডেডিকেটেড চ্যাটবট তো বটেই ব্যক্তিগত বা গ্রুপ চ্যাটের মধ্যেও মেটা এআইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন।

বর্তমানে এই ফিচার সীমিত সংখ্যক ব্যবহারকারীর জন্য শুধু ইংরেজি ভাষায় উপলব্ধ। এর কারণ সম্ভবত মেটা এখনো ফিচারটা নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা করছে। ধীরে ধীরে তা সবার কাছে আসবে। যেমন মেটা এআই আগে শুধু ছবি তৈরি করতে পারত, এখন সেই ছবিকে জিআইএফে আনতে অ্যানিমেট করতে পারে।

ব্যবহারকারী এখন আরও মজাদার এবং আকর্ষক চ্যাটিংয়ের জন্য মেটা এআই-এর তৈরি যে কোনো ছবিকে জিআইএফে অ্যানিমেট করতে পারবেন। হোয়াটসঅ্যাপে মেটা এআইয়ের অ্যানিমেট ফিচার ব্যবহারের পদ্ধতি জেনে নিন-

>> প্রথমে মেটা এআই খুলতে হবে।
>> চ্যাট ইন্টারফেসের উপরে নীল রঙের গোলাকার আইকন পাবেন, এতে ক্লিক করুন।
>> এবার ব্যক্তিগত বা গ্রুপ চ্যাটে মেসেজ ফিল্ডে মেটা এআইকে ট্যাগ করে সেন্ড করতে হবে। প্রম্পটে এআইকে বলতে হবে পছন্দের ছবি তৈরির কথা।

>> ছবি তৈরি হয়ে গেলে সেই ছবিতেই মেটা এআইকে অ্যানিমেট করার কথা বলতে হবে। এই প্রম্পট পেলেই মেটা এআই জেনারেট ছবি থেকে জিআইএফ তৈরি করে দেবে।

তবে ব্যবহারকারী সরাসরি মেটা এআই-কে জিআইএফ তৈরি করার কথা বলতে পারবেন না। প্রথমে ছবি করতে বলতে হবে। তারপর সেই ছবিকে জিআইএফে বদলানোর প্রম্পট দিতে হবে। প্রসঙ্গত, মেটা এআই-কে ডেটা ডিলিটের অনুরোধও করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। গোপনীয়তা বজায় রাখার জন্য এটা জরুরি।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy