বিশেষ: লাগবে না স্মার্টফোন, মস্তিষ্ক থেকেই সরাসরি কল করা যাবে, আসছে নতুন প্রযুক্তি

স্মার্টফোনের যুগ কি তাহলে শেষ হতে যাচ্ছে? এবার স্মার্টফোন ছাড়াই করা যাবে কল! তাও আবার মানুষের মস্তিষ্ক থেকেই! এমনই প্রযুক্তি উদ্ভাবনের দিকে এগোচ্ছেন বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনকুবের ও স্পেস এক্সের কর্ণধার ইলন মাস্ক।
মাস্ক নিউরালিঙ্ক চিপ ও ইন্টারফেস এরই মধ্যে তৈরি করা হয়েছে, যা মানুষের মস্তিষ্কে বসানো হবে। এটি দিয়েই স্মার্টফোন নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। এদিন এক্স প্ল্যাটফর্মে সেই সংক্রান্ত একটি পোস্ট করেছেন টেসলা কর্তা। তার দাবি, ভবিষ্যতে পৃথিবী থেকে উধাও হবে সমস্ত স্মার্টফোন। ফোনে যা যা করা হয়, তা এই চিপের সাহায্যেই হয়ে যাবে।

এতদিন সায়েন্স ফিকশন ছবিগুলোতে যা দেখা গিয়েছিল, তা এবার বাস্তবে করতে চলেছেন ইলন মাস্ক। যদিও ইতিমধ্যে সফল একটি ট্রান্সপ্ল্যান্ট করেছে নিউরালিঙ্ক। এক্স প্ল্যাটফর্মে নিজের একটি এআই জেনারেটেড ছবি পোস্ট করছেন তিনি।

ছবি থেকে বোঝা যাচ্ছে, ফোনের মতো মস্তিষ্ক থেকে নিয়ন্ত্রণ হবে সবকিছু। এই পোস্টে তিনি নিউরালিঙ্ক ইন্টারফেস এবং এক্স ফোনের কথা বলেছেন। অর্থাৎ আগামীদিনে এই সংক্রান্ত কিছু করার পরিকল্পনা, তার থাকলেও থাকতে পারে। এমনিতে খামখেয়ালি মন্তব্যের জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চায় থাকেন ইলন মাস্ক।

তিনি বলেন, ব্যবহারকারী এবার থেকে ভাবনা দিয়েই স্মার্টফোন নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। আরও একটি পোস্টে তিনি জানিয়েছে, ভবিষ্যতে ফোনের দরকার পড়বে না। আপনি শুধু নিউরালিঙ্ক দেখতে পাবেন।

নিউরালিঙ্ক প্রযুক্তি কী?

নিউরালিঙ্ক হল একরকম রোবোটিক প্রযুক্তি যা আপনার মস্তিষ্কের সঙ্গে যুক্ত হবে। যেহেতু এটি একটি চিপ, তাই ভাবনা দিয়েই স্মার্টফোন, ট্যাব এবং কম্পিউটার নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। সম্পূর্ণ ওয়্যারলেস উপায়ে ডেটা সরবরাহ হবে। ঠিক যেমন ওয়্যারলেস ইয়ারফোনে গান শোনা হয়। ভবিষ্যতে এরকমই একটি ডিভাইস ইনস্টল করা হবে মস্তিষ্কে, যা আরও বেশি উন্নত হবে এবং সেটি দুনিয়া থেকে মোবাইল ফোন মুছে ফেলবে।

তবে ইলন মাস্কের এই প্রস্তাবে কেউ খুশি তো কেউ হাসি-ঠাট্টা করেছেন। কেউ কেউ মন্তব্য করেছেন মস্তিষ্কে অপারেশন করার চেয়ে ভালো স্মার্টফোন ব্যবহার করা।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy