ক্যাসপারস্কি সফটওয়্যার নিষিদ্ধ করছে আমেরিকা, জেনেনিন কেন?

রুশ সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে ক্যাসপারস্কি সফটওয়্যার নিষিদ্ধ করার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ক্যাসপারস্কির ওপর মস্কোর যে প্রভাব, তা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য উল্লেখযোগ্য ঝুঁকি তৈরি করছে বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন দেশটির বাণিজ্যমন্ত্রী জিনা রেইমান্ডো। খবর বিবিসির।

মার্কিন বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘আমেরিকানদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ ও তা হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহারে রাশিয়ার সক্ষমতা ও অভিপ্রায়ের কারণে যুক্তরাষ্ট্র এ পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে।’

মার্কিন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ‘ক্যাসপারস্কি যুক্তরাষ্ট্রে নিজেদের সফটওয়্যার বিক্রি করতে পারবে না। আর যেগুলো এখন ব্যবহৃত হচ্ছে সেগুলোর আপডেট দিতে পারবে না।’

তবে এই মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আইনি লড়াই চালানোর ঘোষণা দিয়ে ক্যাসপারস্কি বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়, এমন কোনো কার্যকলাপে তারা জড়িত নয়।

রুশ কোম্পানি ক্যাসপারস্কির দাবি, তারা বেসরকারি কোম্পানি এবং তাদের সঙ্গে রুশ সরকারের কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই।

মার্কিন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ক্যাসপারস্কি সফটওয়্যার আপডেট করা যাবে না। আর ৩০ দিনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে নতুন ব্যবসা বন্ধ করতে হবে হবে ক্যাসপারস্কিকে। এ নিয়মের ব্যত্যয় হলে ক্রেতা ও বিক্রেতাকে জরিমানার সম্মুখীন হতে হবে।

রুশ সামরিক গোয়েন্দাদের সহযোগিতার অভিযোগে ক্যাসপারস্কির রাশিয়ার দুটি এবং যুক্তরাজ্যভিত্তিক একটি ইউনিটের নাম নিষেধাজ্ঞার তালিকা যুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

ক্যাসপারস্কির সদরদপ্তর মস্কোতে অবস্থিত। বিশ্বের ৩১টি দেশে তাদের কার্যালয় রয়েছে। বিশ্বের ২০০টি দেশের প্রায় ৪০ কোটি মানুষ ক্যাসপারস্কি ব্যবহার করেন।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy