SPORTS: “যোগ্য নেতৃত্ব দিয়েছেন”-আরও ২ বছর ভারতের নেতৃত্বে থাকবেন রোহিত শর্মা!

ঘরের মাঠে শিরোপা হাতছাড়া হয়েছে ভারতের। আহমেদাবাদে স্বাগতিক ভারতকে অশ্রুসিক্ত করে ষষ্ঠবার বিশ্বজয় করেছে অস্ট্রেলিয়া। এমন হারের পর অধিনায়্ত্ব নিয়ে প্রশ্ন তোলাটা স্বাভাবিক। কিন্তু ভারত এখানেই ব্যতিক্রম। অন্যকোনো দল হলে হয়তো, অধিনায়কের ঘাড়েই দোষ চাপানো হতো। কিন্তু ভারত করলো রোহিতের প্রশংসা!

রোহিত শর্মা এবারের বিশ্বকাপে দারুণ নেতৃত্ব দিয়ে দলকে অপরাজিত রেখে ফাইনালে তুলেছে। তবে কপালের কাছে হেরেই হয়তো শিরোপা হাতছাড়া করেছেন ভারতীয়রা।

নেতৃত্বে অসাধারণ নৈপুণ্য দেখানোর কারণে রোহিতকে কমপক্ষে আরও ২ বছর অধিনায়কের দায়িত্বে রাখতে রাখতে চায় ভারত। কারণটা অনেকটাই স্পষ্ট। রোহিতের মতো করে নেতৃত্ব দেওয়ার মতো কোনো বিকল্প এখনো ভারতীয় দলে তৈরি হয়ে উঠেনি। এজন্যই রোহিতই থাকছেন অধিনায়ক।

২০০৭ সালে যখন রাহুল দ্রাবিড় ভারতের অধিনায়কের দায়িত্ব ছেড়েছিলেন, তখন তার বিকল্প হিসেবে দলে ছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। আবার ধোনি যখন নেতৃত্ব ছেড়েছিলেন, তখন দলকে পরিচালনার ভার নিয়েছিলেন অভিজ্ঞ বিরাট কোহলি। কোহলি থেকে দায়িত্বভার কাঁধে নিয়েছিলেন রোহিত।

কিন্তু রোহিত থেকে দায়িত্ব কে নেবেন? দলে নেই তেমন অভিজ্ঞতাসম্পন্ন কোনো ক্রিকেটার। যারা দলে আছেন তারা দল পরিচালনার দায়্ত্বি নেওয়ার জন্য প্রস্তুত নয়। কারণ, তাদের অধিকাংশই তরুণ ক্রিকেটার।

আবার যারা এর আগে দুই-একবার ভারতের নেতৃত্ব দিয়েছেন তাদের মধ্যে হার্দিক পান্ডিয়া শুধু টি-টোয়েন্টির দায়িত্ব নিয়েছিলেন। কিন্তু এই অলরাউন্ডারের ওয়ানডেতে নেতৃত্ব দেওয়ার অভিজ্ঞতা নেই। যদিও এবারের বিশ্বকাপে তিনি সহ-অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। কিন্তু ইনজুরির শঙ্কার কারণে হার্দিকের হাতে নেতৃত্ব দিতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছে না ভারত।

হার্দিক ছাড়া ভারতের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন লোকেশ রাহুল ও জাসপ্রিত বুমরাহ। তবে সেটি কেবল একটি টেস্ট সিরিজ ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সংক্ষিপ্ত টি-টোয়েন্টি সিরিজ ছিল। পূর্ণকালীন অধিনায়ক হওয়ার মতো বিকল্প আপাতত নেই।

রোহিতের নেতৃত্ব নিয়ে ফাইনাল ম্যাচের পর কোচ রাহুল দ্রাবিড় বলেছেন, ‘সে (রোহিত) একজন অসাধারণ নেতা। সে দলকে দারুণভাবে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছে। ড্রেসিংরুমের ছেলেদের (ক্রিকেটার) সে অনেক সময় দিয়েছে এবং শক্তি ব্যয় করেছে। যেকোনো আলোচনা, মিটিংয়ে সে সবসময় উপস্থিত থাকে।’

দ্রাবিড় আরও বলেন, ‘তার (রোহিত) ব্যক্তিগত সময় ও শক্তি থেকেও সে অনেককিছু দিয়েছে। সে নেতৃত্বে উদাহরণ তৈরি করতে চায়। পুরো টুর্নামেন্টেই সে এটা দক্ষতার সঙ্গে করে দেখিয়েছে। একজন ব্যক্তি বা নেতা হিসেবে সে কতটা ভালো, সেটা আমি বলে বোঝাতে পারব না।’

ফলে ধারণা করা হচ্ছে, ২০২৫ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি রোহিতের নেতৃত্বেই খেলবে ভারত। এরপর নেতৃত্বে থাকা না থাকার বিষয়ে এই ডানহাতি মারকুটে ওপেনারের মতামত জেনে সিদ্ধান্ত নেবে ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিসিসিআই)।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy