Recipe: ভাতের সাথে মেখে খান ইলিশের দই-পোস্ত, শিখেনিন রান্নার সেরা পদ্ধতি

বর্ষায় ইলিশ খাওয়ার ধুম পড়ে যায় ঘরে ঘরে। এ সময় নদী থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা হয় রূপালি ইলিশ। বাজারেও সহজলভ্য হয়ে ওঠে এই মাছ। জাতীয় মাছ ইলিশ শুধু রূপেই নয় স্বাদেও অনন্য।

সামান্য লবণ ও হলুদ এবং কাঁচামরিচ দিয়ে রান্না করলেও এর স্বাদ ও সুবাস সবার জিভে জল এনে দেয়। ইলিশের বিভিন্ন পদ হয়তো খেয়ে থাকবেন। বিশেষ করে ভাপা ইলিশ, সর্ষে ইলিশ, দই ইলিশ তো অনেক খেয়েছেন।

এবার না হয় স্বাদ বদলাতে তৈরি করুন দই-পোস্ত ইলিশ। যদি কখনো না খেয়ে থাকেন; তাহলে আর দেরি না করে এবারের বর্ষা মৌসুমেই খেয়ে দেখুন দারুণ লোভনীয় এই পদটি।

ধোঁয়া ওঠা গরম ভাতের সঙ্গে ইলিশের এই পদ মুহূর্তেই আপনার ক্ষুধা আরও বাড়িয়ে দেবে। সামান্য কয়েকটি উপাদান দিয়েই খুব কম সময়ে তৈরি করে নেওয়া যায় ইলিশের এই বিশেষ পদ। চলুন জেনে নেওয়া যাক রেসিপি-

উপকরণ

১. ইলিশ মাছের টুকরো ৪টি
২. টকদই ১ কাপ
৩. পোস্ত বাটা সামান্য
৪. পাতিলেবু ১টি
৫. ক্রিম ২ চামচ
৬. লবণ-চিনি পরিমাণ মতো
৭. কাঁচামরিচের ফালি ৬টি ও
৮. সরিষার তেল

পদ্ধতি

প্রথমে ইলিশ মাছ ভালোভাবে ধুয়ে একটা আস্ত পাতিলেবুর রস, হলুদ আর লবণ দিয়ে ২ ঘণ্টা ম্যারিনেট করে রাখুন।

এবার পোস্ত, কাজুবাদাম একসঙ্গে বেটে নিন। এর সঙ্গে ক্রিম আর ১ চামচ দুধ মিশিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিতে হবে। টকদইও ভালো করে লবণ ও চিনি দিয়ে ফেটিয়ে নিন।

এবার ইলিশ মাছ ভালো করেই ভেজে নিতে হবে। তারপর কড়াইতে কালোজিরা ও কাঁচা মরিচ ফোড়ন দিয়ে পোস্ত বাটা ঢেলে দিন। একটু কষা হয়ে এলে দইয়ের মিশ্রণ দিন।

খুব ভালোভাবে মিশে তেল ছেড়ে আসলে অল্প জল মিশিয়ে দিন। এরপর মসলার মিশ্রণে মাছ দিয়ে দিন। বেশ মাখা মাখা হয়ে এলে কাঁচামরিচের ফালি ছড়িয়ে দিন।

চাইলে নামানোর আগে ধনেপাতা কুচিও দিতে পারেন। সেইসঙ্গে লবণ ঠিক আছে কি-না তা দেখে নেবেন। এরপর গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশ করুন ইলিশের দই-পোস্ত।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy