Recipe: বাড়িতে মাত্র ২ উপকরণেই তৈরি করুন স্পঞ্জ রসগোল্লা, শিখেনিন পদ্ধতি

মিষ্টি খেতে কে না পছন্দ করে! যদি হয় রসগোল্লা তাহলে তো আর কথায় নেই। ভরপেট খাওয়ার পর শেষ পাতে মিষ্টি ছাড়া কি চলে। তাই ১৫ মিনিটেই ঘরেই তৈরি করে নিন স্পঞ্জ রসগোল্লা। মাত্র ২ উপকরণ দিয়েই তৈরি করে নিতে পারবেন এই রসগোল্লা। চলুন তবে জেনে নিন রেসিপি-

উপকরণ

১. তরল দুধ ১ লিটার
২. চিনি ১ কাপ

পদ্ধতি

একটি প্যান উনুনে লো মিডিয়াম হিটে রেখে এক লিটার দুধ ঢেলে দিন। এবার অনবড়ত নাড়ুন বলক আসা পর্যন্ত। এবার ৩ টেবিল চামচ জলের সঙ্গে সমপরিমাণ সাদা ভিনেগার মিশিয়ে দুধের মধ্যে ঢেলে দিন। ভিনেগার হাতের কাছে না থাকলে লেবুর রসও ব্যবহার করতে পারেন।

তারপর আবারও নাড়তে থাকুন। দেখবেন কিছুক্ষণের মধ্যে দুধ ফেটে ছানা হয়ে যেতে শুরু করবে। এবার উনুন থেকে নামিয়ে একটি পরিষ্কার পাতলা সুতির কাপড়ের উপরে দুধের ছানা ঢেলে ফেলে, জল ঝড়িয়ে নিতে হবে। তারপর জল ঢেলে ছানা ভালো করে ধুয়ে নিন। যাতে ছানার মধ্যে ভিনেগারের গন্ধ না থাকে।

এবার হাতে দিয়ে কাপড় পুটলির মতো করে থরে চিপে ছানার মধ্যকার জল নিংরে নিতে হবে। ছানার মধ্যে যেন একটুও জল না থাকে। এরপর একটি স্থানে কাপড়ের পুটলিটা ঝুলিয়ে রাখুন ১৫ মিনিটের জন্য। এবার একটি পাত্রে ছানা ঢেলে তা হাত দিয়ে ভালো করে মথে নিন। তাহলে ছানাটি খুব সুন্দর নরম হয়ে যাবে।

যখন দেখবে ছানা একেবারেই ক্রিমি হয়ে গেছে; তখন হাত দিয়ে বেলে লম্বা দড়ির মতো করে নিন। তারপর একটি করে ছানা হাতে নিয়ে গোল বলের মতো করে নিন। বলের মধ্যে যেন কোনোরকম ফাটল না থাকে। ফাটল থাকলে মিষ্টিগুলো ভেঙে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে। তাই ভালো করে দুই হাতের মধ্যে ছানা নিয়ে ছোট বল তৈরি করে নিতে হবে।

এবার প্যানে ৪ কাপ পরিমাণ জলের সঙ্গে ১ কাপ চিনি মিশিয়ে নিতে হবে। চাইলে কয়েকটি এলাচ দিতে পারেন। কোনোভাবেই সিরা ঘন করা যাবে না। তাই একটি বলক আসলেই এর মধ্যে ছানার বলগুলো একেক করে দিয়ে একটু নেড়ে তারপর ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে।

এ সময় উনুনের আঁচ মিডিয়ামে রাখুন ১০ মিনিটের জন্য। ঢাকনা সরাবেন না এবং উনুনের আঁচ বাড়ানো বা কমানো যাবে না। এরপর ঢাকনা সরিয়ে হালকা হাতে মিষ্টিগুলো নেড়েচেড়ে দিয়ে আবারও ঢেকে দিতে হবে ৫ মিনিটের জন্য। এবার ঢাকনা তুললেই দেখবেন, তৈরি হয়ে গেছে নরম তুলতুলে মিনি স্পঞ্জ রসগোল্লা।

এবার উনুন বন্ধ করে আধা ঘণ্টার জন্য রসগোল্লা ঢেকে রাখুন ওই পাত্রেই। যাতে রসগোল্লার মধ্যে যেন সিরা ভালোভাবে ঢুকে যায়। এরপর গরম গরম পরিবেশন করুন ঘরে তৈরি পারফেক্ট স্পঞ্জ রসগোল্লা। চাইলে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করেও খেতে পারেন এই রসগোল্লা।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy