OMG! ১ টি নাম ঠিক করেই পারিশ্রমিক নেন ৭ লাখ, নবজাতকের নাম ঠিক করে দেওয়াই মহিলার পেশা

নবজাতকের নাম রাখার আগের জটিলতার কথা সবার জানা। জন্মের আগে থেকেই নবজাতকের নাম রাখার ব্যাপারে শুরু হয় তোড়জোড়। এমন পরিস্থিতি এড়ানোর সুযোগ রয়েছে। নবজাতকের নাম ঠিক করে দেবেন পরিবারের বাইরের কেউ। তাও আবার পারিবারিক সংস্কৃতি ও অন্যান্য পারিপার্শ্বিক অবস্থার ওপর ভিত্তি করে।

নিউইয়র্কের বাসিন্দা টেলর এ হামফ্রে এই কাজকেই নিজের জীবিকা নির্বাহের পথ হিসেবে বেছে নিয়েছেন। সন্তানসম্ভবা ধনী দম্পতিরা তার কাছে হবু সন্তানের নামকরণ করতে আসেন। টেলরের মতে, নাম শুধু আমাদের পরিচয় বহন করে না। নামের মাধ্যমেই ফুটে আসে নিজেদের ব্যক্তিত্ব, পরিবারের সংস্কৃতি ছাড়া আরও অনেক কিছু।

৩৩ বছর বয়সী টেলর ২০১৫ সালে এ ব্যবসা শুরু করেন। প্রথমে ইন্টারনেটের মাধ্যমে তিনি তার পেশার কথা জানান। তিন বছর পর ২০১৮ সাল থেকেই টেলর তার ব্যবসা বাড়াতে থাকেন।

টেলর নাম বেছে দেওয়ার জন্য প্রতিবার পক্ষে দেড় হাজার ইউএস ডলার থেকে সর্বোচ্চ ১০ হাজার ডলার বা সাড়ে ৭ লাখ টাকার বেশি পারিশ্রমিক নেন। তিনি দম্পতিকে ফোন করে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন এবং সেই তথ্যের ওপর নির্ভর করে তিনি নামকরণ করেন। এমন কি পারিবারিক ব্যবসার ধরনের ওপর ভিত্তি করেও টেলর নবজাতকের নামকরণ করেন।

টেলর জানান, এমন কখনও হয়নি যে তার ঠিক করে দেওয়া নাম কারও অপছন্দ হয়েছে। নামের প্রথম অংশ হিসেবে না হলেও মধ্যনাম (মিডল নেম) হিসেবে ব্যবহার করেন অনেকে।

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে অনেকেই অনুরোধ করতেন নিজের সন্তানের নামকরণের জন্য। কবি কখনও কারও অনুরোধ এড়িয়ে যেতেন না বলেই জানা যায়। রবীন্দ্রনাথের মতো অনেক খ্যাতজনকেই এমন অনুরোধের সামনে পড়তে হয়েছে। কিন্তু অনুরোধ এক জিনিস। আর সেটিকে ব্যবসায় পরিণত করা তো বিশাল ব্যাপার। টেলর সেই কাজটি করেই তাক লাগিয়ে দিয়েছেন।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy