LIC: ২৫০ টাকা জমা রাখলেই পাবেন ৫৫ লক্ষ টাকা রিটার্ন, জেনেনিন LIC র নতুন পলিসি

আজও দেশের সাধারণ মানুষ যদি জীবন বীমার কথা ভাবে তো প্রথমেই নাম আসে লাইফ ইন্সুরেন্স কর্পোরেশনের কথা। LIC বীমার সবচেয়ে বড় একটি সুবিধা হলো জীবন বীমার জন্য বেশি একটা অর্থ খরচ করতে হয়না সেই সাথে আর্থিক রিটার্নের নিশ্চয়তা।

সম্প্রতি LIC শুরু করেছে এক নতুন পলিসি। যে পলিসিতে আপনি প্রতিদিন ২৫৩ টাকা রেখে মাচুরিটিতে পেতে পারেন ৫৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত রিটার্ন। এক্ষেত্রে যদি আপনার বোতল ২৫ বছর হয় ও আপনি এই বীমাটি যদি ২৫ বছরের মেয়াদে করেন তবে বীমার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর আপনি ম্যাচুরিটি হিসেবে পেতে পারেন ৫৪.৫০ লক্ষ টাকা।

এলআইসি জীবন লাভ পলিসি নেওয়ার নিয়ম
এলআইসি জীবন লাভ পলিসি নেওয়ার জন্য যে নিয়মগুলি মনে রাখতে হবে এবং করা এই পলিসি কিনতে পারেন-

এলআইসি জীবন লাভ প্লানটি তিনটি ভাবে কাজ করে, ১৬ বছর, ২১ বছর, এবং ২৫ বছর।
১৬ বছরের প্ল্যান নিলে আপনাকে প্রিমিয়াম দিতে হবে ১০ বছর পর্যন্ত, ২১ বছরের জন্য দিতে হবে ১৫ বছর এবং ২৫ বছরের প্লানের জন্য দিতে হবে ১৬ বছর পর্যন্ত।

এই পলিসি নেওয়ার জন্য কমপক্ষে ৮ বছর বয়স হতে হবে।
সর্বাধিক বয়স এই পলিসির জন্য আলাদা আলাদা যেমন, যদি আপনি ১৬ বছরের জন্য পলিসি কেনেন তাহলে আপনি ৫৯ বছর বয়স পর্যন্ত নিতে পারবেন, ২১ বছরের প্লানের জন্য ৫৪ বছর বয়স পর্যন্ত নিতে পারবেন, এবং ২৫ বছরের প্ল্যান ৫০ বছর বয়স পর্যন্ত।

আপনি আপনার প্লানের প্রিমিয়াম নিজের ইচ্ছে মত বেছে নিতে পারেন, বছরে, ছয় মাসে, তিন মাসে, মাসে নয়তো আপনি যদি চান যে আপনার বেতন থেকে টাকা কাটা হক সেই সুবিধাও রয়েছে(SSS- Salary Savings Scheme)।

যদি কোন কারণে আপনার প্রিমিয়াম বকেয়া থেকে যায় বা দিতে পাচ্ছেন না তাহলেও এই প্ল্যানটি বন্ধ হয়ে যায় না। দুই বছরের মধ্যে যে কোন সময় যতগুলি বকেয়া প্রিমিয়াম থাকবে সেগুলি আপনি দিতে পারেন।
আপনি এই পলিসি নিয়ে নেওয়ার পর আপনার যদি মনে হয় যে আপনি এই পলিসিটি নেবেন না তাহলে তার জন্য ১৫ দিন সময় থাকে তবে সে ক্ষেত্রে আপনার কিছু টাকা কাটা হতে পারে।

এই প্লানটি আপনি নিতে পারেন সব থেকে কম ২ লক্ষ টাকা এবং সর্বোচ্চ কোন সীমা নেই।
এই প্লানটির সুবিধা হিসেবে থাকছে ম্যাচুরিটি বেনিফিট, ডেথ বেনিফিট, বোনাস, ফাইনাল এডিশনাল বোনাস(যদি থাকে)

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy