মুখের দুর্গন্ধ দূর করার সবচেয়ে সহজ উপায়

মুখে দুর্গন্ধ নিয়ে লোকের কাছে টিটকিরি শোনার চেয়ে বাজেভাবে অপদস্থ হওয়া আর কিছুতে নেই। অনেকেই মুখে দুর্গন্ধের সমস্যায় ভোগেন। কাঁচা পেঁয়াজ খেলে, মুখের ভিতরের স্বাস্থ্য ভালো না হলে, দাঁতের সমস্যা থাকলে বা এমনকী ডিহাইড্রেশনে ভুগলেও মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে। অনেকেই ভাবেন তাদের মুখে দুর্গন্ধ নেই। আসলে আমরা নিজেদের মুখের গন্ধ নিজেরা পাই না বলে এমন ধারণা হয়ে থাকতে পারে। তবে শরীরের বাইরের সৌন্দর্যকে বজায় রাখার পাশাপাশি মুখের ভিতরকে কীভাবে সুস্থ রাখবেন ও দুর্গন্ধ দূর করবেন তা জেনে নিন।

দন্ত বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন :  দাঁতে ক্ষয় ও মাড়িতে নানা রোগের ফলে মুখে দুর্গন্ধ হয়। তাই সবচেয়ে প্রথমে দন্ত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। অনেক সময়ে শরীরের ভিতরের নানা সমস্যার কারণেও মুখে বাজে গন্ধ হতে পারে।

দিনে দু’বার ব্রাশ করুন : মুখের ভিতরের স্বাস্থ্য ভালো হলে মুখে দুর্গন্ধ হয় না। এর থেকে রেহাই পেতে দিনে দু’বার ব্রাশ করুন। যদি তাতেও না কমে তাহলে বেকিং সোডা ব্যবহার করতে পারেন। এটি মুখের ভিতরের অ্যাসিডকে নিয়ন্ত্রণ করবে ও ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধি আটকাবে।

বেশি করে জল খান  : শরীর ডিহাইড্রেটেড থাকলে মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার চান্স অনেক বেশি। ফলে বেশি করে জল খাওয়া অভ্যাস করুন। এর ফলে দাঁতের ফাঁকে জমে থাকা খাবারও বেরিয়ে যাবে।
জিভ পরিষ্কার করুন : ব্রাশ করার সময়ে শুধু দাঁত পরিষ্কার করলেই হবে না। জিভকেও সমানভাবে পরিষ্কার করতে হবে। একমাত্র তাহলেই মুখের সার্বিক স্বাস্থ্য ভালো হবে ও বাজে গন্ধ দূর হবে।
চুয়িং গাম চিবানো :  চিনি বর্জিত চুয়িং গাম চিবালে মুখে লালার উৎপাদন ভালো হয়। এর ফলে মুখে ভিতরে ব্যাকটেরিয়ার বাড়বাড়ন্ত বন্ধ হয় ও দুর্গন্ধ দূর হয়।

পার্সলে পাতা খাওয়া : পার্সলে পাতায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্লোরোফিল এবং মুখের দুর্গন্ধ তাড়াতে এটি বিশেষ ভূমিকা নেয়।

চা খাওয়া : চায়ে রয়েছে নানা ধরনের অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান যা মুখের ভিতরের ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে ও দুর্গন্ধ দূর করে।ts

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy