ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর সাথে মুখোমুখি নরেন্দ্র মোদি, চুক্তি সই করে আরো শক্তিশালী হলো ভারত

প্রতিরক্ষা এবং ব্যবসায়িক সহযোগিতা বাড়াতে ঐক্যমতে পৌঁছেছে ভারত এবং যুক্তরাজ্য। দিল্লি সফরের দ্বিতীয় দিনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকে এ বিষয়ে সম্মত হন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, দ্বিপক্ষীয় মুক্ত-বাণিজ্য চুক্তি আগামী অক্টোবর নাগাদ সম্পন্ন হতে পারে। শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রথমবার ভারতের রাজধানী দিল্লি সফর এসেছেন বরিস জনসন। সফরে প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে সাক্ষাতে দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নয়ন এবং নিরাপত্তার ইস্যুতে আরও জোর দেন বরিস।

ব্রিটেন আশা করে পশ্চিমের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ নিরাপত্তা সম্পর্কের প্রস্তাব রাশিয়ার ওপর ভারতের প্রতিরক্ষা নির্ভরতা কমাতে উৎসাহিত করবে মনে করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। জনসন তাঁর দুদিনের সফরের শেষ দিনে মোদির সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমাদের মধ্যে দারুণ আলোচনা হয়েছে। এতে আমাদের সম্পর্ককে আরও মজবুত করবে। আমরা প্রতিরক্ষা এবং নিরাপত্তা অংশীদারিত্বে সম্মত হয়েছি।’

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, ২০২২ সালের শেষ নাগাদ একটি বাণিজ্য চুক্তিতে পৌঁছানোর লক্ষ্যে দুই দেশের প্রতিনিধিরা এরই মধ্যে আলোচনা শুরু করেছেন। আগামী সপ্তাহে এ আলোচনার তৃতীয় পর্যায় শুরু হবে।

জনসন বলেন, সামরিক সরঞ্জামের ব্যয়বহুল আমদানি কমাতে ভারতের নিজস্ব ফাইটার জেট তৈরির প্রচেষ্টাকে সহায়তা করবে ব্রিটেন। ভারতের বিমান বাহিনীর বহরে এখন রাশিয়া, ব্রিটিশ এবং ফ্রান্সের তৈরি যুদ্ধবিমান রয়েছে।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy