বিজেপি নেতার রহস্য মৃত্যু ‘সুপরিকল্পিত চিত্রনাট্য’ নয় তো? শঙ্কা প্রকাশ কুণালের!

কাশীপুরে এক বিজেপি যুবনেতার রহস্যমৃত্যু। এই রহস্যমৃত্যু ঘিরে সেখানে তুলকালাম পরিস্থিতি। চিৎপুর থানার পুলিশকে মৃতদেহ তুলতে বাধা। পুলিশের সঙ্গে হয়েছে ধস্তাধস্তি। কাশীপুর রেল কলোনির একটি ঘর থেকে উদ্ধার হয় বিজেপি যুবনেতার ঝুলন্ত দেহ। খুন বলে অভিযোগ করেন মৃতের পরিবার। দলীয় নেতার রহস্যমৃত্যুতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও। কোচবিহার থেকে ফিরে আজই যেতে পারেন মৃত যুবনেতার বাড়িতে।

মৃত অর্জুন চৌরাসিয়া কাশীপুর-বেলগাছিয়া বিজেপি যুব মোর্চর মণ্ডল সহ সভাপতি ছিলেন। তার পরিবারের থেকে জানা গিয়েছে, গতকাল রাতে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন অর্জুন। কিন্তু বাড়ি থেকে বেরিয়ে আর ফেরেননি তিনি। পরের দিন সকালে পরিত্যক্ত একটি ঘর থেকে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় অর্জুনের।

পদ্ম শিবিরের অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই অর্জুনকে খুন করে দেহ ঝুলিয়ে দিয়েছে। অর্জুনের মৃত্যুর ক্ষোভে ফুঁসছেন এলাকাবাসীও। মৃতের দেহ উদ্ধারে গেলে স্থানীয়রা বাধা দেন পুলিশকে।

আবার অন্যদিকে, দলের যুবনেতার মৃত্যুতে ক্ষোভে রয়েছে বিজেপিও। দলের প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, অভিজিৎ সরকারের পর আরও এক বিজেপ নেতা খুন। নিরপেক্ষভাবে বিষয়টি তদন্ত করা হোক।

তবে কুণাল এই ঘটনাকে ‘সুপরিকল্পিত চিত্রনাট্য’ বলে উল্লেখ করছেন। শুধু তাই নয়, তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদকের প্রশ্ন, বিজেপি আদতে কাউকে শেষ করে দিয়ে ইস্যু তৈরি করার চেষ্টা করছে না তো? তিনি তাঁর টুইটে লিখছেন, ”তান্ত্রিকদের নরবলির মত। আত্মহত্যা, নাকি আসলে নিজেদেরই বিক্ষুব্ধ শিবিরের কাউকে শেষ করে ইস্যু তৈরির চেষ্টা? তাঁর সফরের মধ্যে হলে নাটক করার সুযোগও থাকছে। ওদেরই সুপরিকল্পিত চিত্রনাট্য নয় তো? জনবিচ্ছিন্ন সরীসৃপরা প্রচার আর কুৎসার জন্য আর কত নামবে? তদন্ত চলুক।”

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy