পারিবারিক সমস্যা সমাধান করুন এইসব উপায়ে

পরিবারে থাকতে গেলে একটু ঝগড়া হবে না, তা হয় নাকি। অধিকারহীনতার আভাস থাকে ঝগড়াছাড়া পরিবারে। কিন্তু অধিকার ফলাতে গিয়ে সমস্যা জটিল হলেতো বিপদজনক। সেটাকে দীর্ঘস্থায়ী হতে দেয়া যাবে না। সে সমস্যা মেটাতে নিতে হবে কয়েকটি পদক্ষেপ।

সমস্যা চিহ্নিত : পরিবার একটি প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানকে বলা হয় রাষ্ট্রের অণু রূপ। আপনার সিদ্ধান্তের ওপর যখন সেই প্রতিষ্ঠানের ব্যর্থতা বা সফলতা নির্ভর করে তখন চাইলেই কি কোন একটি সিদ্ধান্ত নিয়ে বসতে পারেন। প্রথমেই মেনে নিন ভালো মন্দ পাশাপাশি থাকে। আর মাঝে মধ্যে লাইন ক্রস করে একে অন্যের রাস্তায় ঢুকে পড়ে। তাই অস্থির না হয়ে আপনি প্রথমে সমস্যা চিহ্নিত করে নিন।

সম্ভাব্য সমাধানগুলো লিখুন :
এবার আপনার কাজ খানিকটা সহজ হয়ে যাবে কেননা আপনি সমস্যাটা জেনে গেছেন। এই সমস্যা সমাধান করতে সম্ভাব্য সমাধানগুলো খুঁজে বের করুন। আর একটু বাড়তি সুবিধা নিতে খাতায় তালিকাবদ্ধ করে নিন।

সমাধানগুলোর র‌্যাঙ্কিং করুন : যতগুলো সমাধানের পথ আপনার সামনে খোলা আছে এবার সেগুলোর র্যা ঙ্কিং করে নিতে পারেন। যে পথ আপনাকে নিরাপদে আর দ্রুত পৌঁছে দেবে সমাধানে, ঐ পথটা বেছে নিন। র্যা ঙ্কিং-এ প্রথমে থাকা সমাধান কৌশটি আগে প্রয়োগ করুন। না হলে পর্যায় ক্রমে একটি একটি কাজে লাগান।

ইতিবাচক চিন্তা করুন :
সমাধানে পৌঁছাতে নিজে আগে এগিয়ে আসুন। এটা আপনার নেতৃত্বের গুণ প্রকাশ করবে। যা সবার মধ্যে থাকে না। সমস্যা যে সৃষ্টি করেছে তার সম্পর্কে অনেক নেতিবাচক চিন্তা আপনার মনে উঁকি- ঝুঁকি দিয়ে চাইবে। পাত্তা না দিয়ে মনকে বলুন ‘কুল ডাউন’।

পরিবারের সদস্যদের সাথে আলোচনা করুন :
প্রথমেই বলে নিন, এই সমস্যা পরিবারের কোন কোন সম্ভাবনা নস্ট করে দিচ্ছে। সমস্যা সমাধান করা না গেলে কি হতে পারে। এই বার নিজের দোষগুলো এক বাক্যে স্বীকার করে নিন। তারপর তাদের বলতে দিন। দেখবেন সঠিক সিদ্ধান্ত বের হবে।

সমন্বিত সিদ্ধান্ত মেনে নিন :
সময় এখন সিদ্ধান্ত মেনে নেবার। এরপর ঘরোয়া একটা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ফেলতে পারেন। বা একসঙ্গে কোথাও গিয়ে ঘুরে আসতে পারেন। দেখবেন সব আবার স্বাভাবিক হয়ে গেছে।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy