দুপুরে খাওয়ার পর ঘুমিয়ে নিলে ভালো থাকে স্মৃতিশক্তি, বলছে গবেষণা

দুপুরে খেয়ে ঘুমানোর অভ্যাস থাকে অনেকেরই। খাওয়ার পরে কোথা থেকে যেন একরাশ ঘুম এসে চেপে ধরে। তবে নানান কারণে কারো কারো ঘুমানো হয়ে ওঠে না। তবে দুপুরের এই ঘুমটা শরীরের জন্য ভীষণ উপকারি।

জেনে নিন দুপুরে ঘুমানোর কত উপকারিতা-

১. গবেষণা বলছে ঘুম কম হলে শরীরে কর্টিসল হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যেতে পারে। এই হরমোন মূলত স্ট্রেস হরমোন নামেই পরিচিত। এর প্রভাবে মানসিক চাপ গ্রাস করতে পারে। খাওয়ার পর ঘুম পেলে তা না আটকানোই ভাল। এতে মন ও মস্তিষ্ক দুই-ই স্থির এবং শান্ত থাকবে। মানসিক চাপও কমবে।

২. যেকোনও কাজ করার ক্ষেত্রে মনোসংযোগ ভীষণ ভাবে প্রয়োজন। তার জন্য দরকার পর্যাপ্ত ঘুম। খাওয়ার পর ঘুম পেলে নির্দ্বিধায় ঘুমিয়ে পড়ুন। কিছুক্ষণের এই ঘুম পরবর্তী সব কাজ করার ক্ষেত্রে মনোযোগী করে তুলবে। শরীর চাঙ্গা ও সতেজ রাখতে সমান উপকারী ভাতঘুম।

৩. দুপুরে খাওয়ার পর ২০-৩০ মিনিট ঘুমিয়ে নিলে উন্নত হয় স্মৃতিশক্তি। মন-মেজাজও ভাল থাকে।

৪. যারা উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভুগছেন, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে দুপুরে খাওয়ার পর কিছু ক্ষণ বিশ্রাম নেওয়ার ছলে ঘুমিয়ে নিতে পারেন। তবে খাওয়ার পর কিছু ক্ষণ হাঁটাহাঁটি করা প্রয়োজন। এতে হজমও ভাল হয়।

৫. ডায়াবিটিস, থাইরয়েড, পিসিওডি-র সমস্যা থাকলেও দুপুরের ভাতঘুম শরীর ভাল রাখতে বেশ কার্যকরী হতে পারে।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy