তাজমহল নাকি হিন্দুদের মন্দির, কী ছিল আগ্রায়? ফের মাথাচারা দিল পুরোনো বিতর্ক

ভারতের ঐতিহাসিক এক নির্মাণ স্থাপত্য হলো তাজমহল। আর সেই তাজমহল কে নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক। ফের মাথা চারা দিয়ে উঠেছে পুরোনো এক বিতর্কিত প্রশ্ন। বিতর্কিত প্রশ্নে দাবি করা হয়েছে তাজমহল আগে হিন্দুদের মন্দির ছিল।

সেই দাবি করে তাজমহলের ২০টি ঘর খুলে পরীক্ষা করার দাবি জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টির এক নেতা। উত্তর প্রদেশের ওই বিজেপি নেতা দাবি করে জানিয়েছেন যে তাজমহলের অন্দরে বহু দেবদেবির মূর্তি ও সনাতন ধর্মের একাধিক নিদর্শন রয়েছে। আর সেই তথ্যকে সামনে নিয়ে আসার জন্যই তিনি দ্বারস্থ হয়েছেন আদালতের।

সম্প্রতি এলাহাবাদ হাই কোর্টের লখনউ বেঞ্চে পিটিশন দায়ের করেছেন বিজেপির অযোধ্যার জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা রজনীশ সিং। তিনি পিটিশনে দাবি করেছেন তাজমহলের ২০ টি ঘর বন্ধ করে রাখা হয়েছে আর সেই ঘর গুলোতেই হিন্দু ধর্মের দেবদেবীর মূর্তি ও সনাতন ধর্মের বিভিন্ন নিদর্শন লুকিয়ে রয়েছে। তাই তিনি আদালতের কাছে আর্জি করেছেন ‘আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া’কে (ASI) ওই ঘরগুলি খোলার জন্য নির্দেশ দিক আদালত। তাহলেই সত্যিটা সামনে আসবে ।

রজনীশ সিং সাংবাদিকদের আরও জানান তাজমহল নিয়ে বহু পুরনো বিতর্ক রয়েছে। এই ঐতিহাসিক নিদর্শনের ভিতরে ২০টি ঘর তালাবন্ধ। কাউকে সেখানে ঢুকতেও দেওয়া হয় না। মনে করা হয়, সেই ঘরগুলিতে হিন্দু দেবদেবীদের মূর্তি (Hindu Idols) রয়েছে। লুকিয়ে রয়েছে সনাতন ধর্মের বহু নির্দশন।

তিনি আরও বলেন,”আমি আদালতে কাছে আবেদন করেছি যাতে তারা আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়াকে ঘরগুলি খোলার নির্দেশ দেয়। ওই ঘরগুলি খোলা হলে তো কোনও সমস্যা নেই। যদি সেখানে কিছু না থাকে, তাহলে সমস্ত বিতর্কের অবসান হবে।”

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy