আসামে বন্যার পরিস্থিতি খুবই ভয়াবহ, মৃত্যু বেড়ে ১০৭

আসাম রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। দুর্যোগে উত্তর-পূর্বের এই রাজ্যটিতে আরও সাত জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে আসামে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৭ জনে।

আসাম রাজ্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ (এএসডিএমএ)-এর বন্যা সংক্রান্ত বুলেটিনে জানানো হয়েছে, ৩০টি জেলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বন্যায়। বন্যার কবলে পড়েছেন ৪৫ লাখ ৩৪ হাজার মানুষ। আশ্রয় কেন্দ্রে ঠাঁই নিয়েছেন অনেকে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের কেন্দ্র থেকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। তিনি এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, আসামের বিভিন্ন অংশে ভারি বৃষ্টিপাতের বিষয়টি নজরে আনা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার পর্যবেক্ষণ করছে। চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় রাজ্য সরকারকে সবধরনের আশ্বাস দেওয়া হচ্ছে।

দেশটির সেনাবাহিনী ও এনডিআরএফ টিম বন্যাদুর্গত এলাকায় উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে। আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা জানিয়েছেন, দৈনিক এক লাখ বোতল পানীয় জল নৌবাহিনীর বিশেষ বিমানে করে শিলচরে পাঠানো হবে। শিলচর শহরে কয়েকশো মানুষ জলবন্দি রয়েছেন। কোথাও কোথাও পানীয় জলের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। গত কয়েক দিন ধরে বিভিন্ন এলাকা বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে।

এদিকে, বৃষ্টির পরিমাণ খানিকটা কমলেও সার্বিক পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। গত বুধবার পর্যন্ত আসাম ও মেঘালয়ে স্বাভাবিকের চেয়ে ২৭২ মিলিমিটার অতিরিক্ত বৃষ্টিপাত হয়েছে। এ সপ্তাহ শেষ না হওয়া পর্যন্ত রাজ্য দুটিতে রেড অ্যালার্ট জারি করেছে ভারতীয় আবহাওয়া বিভাগ।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy