আমেরিকার সহায়তায় রুশ জেনারেলদের হত্যা করছে ইউক্রেন

ইউক্রেন যুদ্ধে এখন পর্যন্ত নিজ দেশের সামরিক বাহিনীর বেশ কয়েকজন ঊর্ধ্বতন জেনারেলকে হারিয়েছে রাশিয়া। জানা গেছে, চলমান এই যুদ্ধে রুশ জেনারেলরা ইউক্রেনীয় যোদ্ধাদের হাতে প্রাণ হারালেও এর পেছনে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মূলত ইউক্রেনে যুদ্ধরত রাশিয়ার জেনারেলদের বিষয়ে গোয়েন্দা তথ্য দিয়ে কিয়েভকে সহায়তা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। আর এতেই একের পর এক উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তা হারিয়েছে রাশিয়া।
যুক্তরাষ্ট্রের সিনিয়র কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে ইউক্রেনকে গোয়েন্দা তথ্য সরবরাহ করা হয়েছে। এসব তথ্যের ওপর ভিত্তি করে রুশ জেনারেলদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে হত্যার সুযোগ পেয়েছে ইউক্রেন।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, টার্গেটিং সহায়তা ইউক্রেনকে রিয়েল টাইম যুদ্ধক্ষেত্রে গোয়েন্দা তথ্য সরবরাহের জন্য বাইডেন প্রশাসনের শ্রেণীবদ্ধ প্রচেষ্টার একটি অংশ।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র ইউক্রেনকে রাশিয়ার সামরিক অবস্থান এবং অন্যান্য বিশদ বিবরণ সরবরাহ করেছে। এসব পর্যালোচনা করে সিনিয়র রাশিয়ান অফিসারদের শনাক্ত করতে সমর্থ হয় কিয়েভ। এরপর তারা এসব স্থানে অভিযান পরিচালনা করে।

এদিকে ইউক্রেনে সামরিক সহায়তা পাঠানো নিয়ে ন্যাটোকে কঠোর সতর্কবার্তা দিয়েছেন রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু। তিনি বলেন, ইউক্রেনের উদ্দেশে পাঠানো অস্ত্র বা সামরিক সরঞ্জামের চালান তাদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হবে।

উল্লেখ্য, এই যুদ্ধের শুরু থেকেই যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য পশ্চিমা মিত্রদেশগুলো রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ইউক্রেনকে অস্ত্র দিয়ে সহায়তা করে আসছে। এভাবে অস্ত্র সরবরাহ পরিস্থিতিকে আরও অবনতির দিকে ঠেলে দিচ্ছে বলে দাবি করছে রাশিয়া।

Related Posts

© 2024 Tech Informetix - WordPress Theme by WPEnjoy